ইসদাইরে ডিস অফিসে প্রশাসনের অভিযান, অফিস সিলগালা

শেয়ার করুণ

ফতুল্লায় অবৈধভাবে ক্যাবল টিভির ব্যবসা পরিচালনার অভিযোগে শিমুল-জামানের মালিকানাধীন ক্যাবল নেটওয়ার্কের (ডিস) অফিস সিলগালা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারী) দুপুর ২টায় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. তামশিদ ইরাম খানের নেতৃত্বে ওই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এসময় র‌্যাব-১১ এর একটিদল অভিযানে আইন শৃঙ্খলা রক্ষ্যায় নিয়োজিত ছিল।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, পূর্ব ইসদাইর এলাকায় দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধ পন্থায় কোন ধরণের অনুমোদন না নিয়ে ডিস ক্যাবল ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে ফারুক আহমেদ শিমুল ও মনিরুজ্জামান। স্থানীয়ভাবে নিজেদের প্রভাব খাটিয়ে প্রায় ২ বছর যাবৎ অবৈধভাবে এই ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে।

অভিযান শেষে গণমাধ্যমকে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট মো. তামশিদ ইরাম খান বলেন, বাংলাদেশ তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের একটি সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পূর্ব ইসদাইর এলাকার বুড়ির দোকানে ওই ডিস ক্যাবল অফিসে যেয়ে প্রতিষ্ঠানের স্বত্তধীকারীদের সাথে যোগাযোগ করা হয়। তাদেরকে ব্যবসার বৈধতা প্রমাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র নিয়ে হাজির হওয়ার জন্য বলা হলেও তারা সেখানে আসেননি। পরবর্তীতে বার বার বলা সত্ত্বেও তারা আমাদের সাথে দেখা না করে কালক্ষেপণ করেছেন।

তিনি আরও বলেন, একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ব্যবসার ট্রেড লাইসেন্স সহ যাবতীয় লাইসেন্সের কপি প্রদর্শিত অবস্থায় রাখার কথা থাকলেও এমন কিছুই আমাদের নজরে আসেনি। সেখানে তাদের কোন স্টাফদেরও আমরা খঁজে পাইনি। পরবর্তীতে কেউ না আসায় দুপুর ২টার দিকে ওই ডিস ক্যবল টিভির অফিস সিলগালা করে দেওয়া হয়। তাদের বিরুদ্ধে আরও বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে। এসময় কিছু ক্যাবল ব্যবসার মালামাল জব্দ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ডিজিটাল ভিডিও রেকর্ডার (ডিভিআর) ২টা, ক্যামেরা ২৪টি, ইডিএফ এপ্লিফায়ার ১টা, ৪ বক্স ক্যাবল ইত্যাদি।

নিউজটি শেয়ার করুণ