এক বছরে ওমরাহ পালনের রেকর্ড

শেয়ার করুণ

ওমরাহর ইতিহাসে ২০২৩ সালে রেকর্ডসংখ্যক দেশি-বিদেশি মুসলিম পবিত্র ওমরাহ পালন করেছেন। গত বছরের ওমরাহ মৌসুমে ১৩ কোটি ৫৫ লাখের বেশিসংখ্যক ওমরাহ পালন করেন। গত ১০ ডিসেম্বর জেদ্দায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক হজ ও ওমরাহ সম্মেলনে এ তথ্য জানান সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহবিষয়ক মন্ত্রী ড. তাওফিক আল-রাবিয়াহ।

ড. তাওফিক আল-রাবিয়াহ বলেন, ‘২০১৯ সালে বিভিন্ন দেশ থেকে সর্বোচ্চসংখ্যক ওমরাহযাত্রী সৌদি আরবে এসেছিলেন। এর সংখ্যা ছিল, ৮.৫ মিলিয়ন। আর ২০২৩ সালে এই সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ১৩ কোটি ৫৫ লাখে গিয়ে পৌঁছে। সেই হিসাবে গত বছরের ওমরাহ মৌসুমে অংশগ্রহণের পরিমাণ ৫৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।’ তিনি আরও জানান, পবিত্র স্থানগুলোর উন্নয়নে ১.৩ বিলিয়ন ডলারের বেশি মূল্যের প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।

যার মাধ্যমে অবকাঠামোর উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন হয়েছে। এর মধ্যে গরমের মৌসুমে মুসল্লিদের জন্য দেড় লাখ নতুন এসি ইউনিট, ১৪ হাজারের বেশি বিশ্রামাগার ও বাথরুমযুক্ত করা হয়।

তাওফিক আল-রাবিয়াহ বলেন, ‘কোনো এজেন্সি বা দূতাবাসের সহযোগিতা ছাড়াই হজ ও ওমরাহযাত্রীদের ভিসা ইস্যু, বুকিংসহ প্রয়োজনীয় সব সেবা দিতে নুসুক অ্যাপ চালু করা হয়। গত বছর বিশ্বের ৬৭টি দেশের হজযাত্রীরা তা ব্যবহার করেন, বিশেষত হজ মিশন না থাকা দেশগুলোর বাসিন্দারা নুসুক অ্যাপের মাধ্যমে সরাসরি হজবিষয়ক সেবা লাভ করছেন। ২০২৪ সালে বিশ্বের ১২৬টি দেশের বাসিন্দারা অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবে।’

গত ৯ জানুয়ারি থেকে সৌদি আরবের জেদ্দার সুপারডোমে চারদিনব্যাপী পবিত্র হজ ও ওমরাহ সম্মেলন এবং প্রদর্শনী সম্মেলন শুরু হয়। দেশটির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠিত সম্মেলনটি উদ্বোধন করেন মক্কার গভর্নর প্রিন্স সাউদ বিন মিশাল। এতে হজ ও ওমরাহ সংশ্লিষ্ট সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুণ