না.গঞ্জে ইফতারের সময় যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা

শেয়ার করুণ

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে প্রকাশ্যে মেরাজুল ইসলাম (২৩) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

এছাড়া আল আমিন (২১) নামে আরেক যুবককে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

গতকাল সোমবার (৩ এপ্রিল ) সন্ধায় বন্দরের রূপালী আবাসিক এলাকায় আয়মান ইন্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপের সামনে এ ঘটনা ঘটে। রাতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহত মেরাজুল ইসলাম ছালেহনগর এলাকার আজহারুল ইসলাম এজা মিয়ার ছেলে। আহত আল আমিন রুপালী আবাসিক এলাকার জাভেদ মিয়ার ছেলে। মেরাজুল ইসলাম আয়মান ইন্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপের মালিক ও আল আমিন ওই ওয়ার্কশপে কাজ করতো।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘মিরাজের লাশ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। অপর যুবক আলামিনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যায় ইফতারের সময়ে আয়মান ইন্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপের সামনে এসে ৪-৫ জনের একদল যুবক অতর্কিতভাবে তাদের ওপর হামলা করে। ধারালো অস্ত্র দিয়ে তারা এলোপাথারি আঘাত করে দুর্বত্তরা চলে যায়। পরে তাদের উদ্ধার করে প্রথামে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ও পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। হামলাকারীদের সকলের মুখ কাপড় দিয়ে ঢাকা ছিল।

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, এই ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুজন যুবককে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মারা যাওয়ার বিষয়টি এখনো নিশ্চিত নই। তদন্ত চলছে। পরে বিস্তারিত বলতে পারবো।

নিউজটি শেয়ার করুণ