না.গঞ্জে উপ-নির্বাচনে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, নিহত ১

শেয়ার করুণ

জেলার সোনারগাঁ উপনির্বাচনের ফলাফলকে কেন্দ্র করে ২ গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে ১ যুবক নিহত ও পুলিশসহ মোট ২০জন আহত হয়েছে।

আজ শনিবার (৯ মার্চ) বিকেলে সোনারগায়ের পিরোজপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডে ৬৯নং দুধ ঘাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় পুলিশ ১০ রাউন্ড টিআরসেল ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে।

নিহত যুবক হলেন, পিরোজপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডে এলাকার আমির ভূইয়ার ছেলে হৃদয় (২২)। নিহত যুবক উপনির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বি কায়সার আহম্মেদ রাজুর সমর্থক বলে জানা যায়। এছাড়া গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন কামাল ভূইয়ার ছেলে ফারুক ভূইয়া (৪৫)।

স্থানীয় প্রত্যাক্ষদর্শীরা জানায়, ভোটের ফলাফল নিয়ে আব্দুল আজিজ গ্রুপ ও রাজুর গ্রুপের মধ্যে কথায় কাটাকাটি শুরু হয়। এক সময় হটাৎ গোলাগুলি শুরু হয়ে। সংর্ঘষে আজিজ গ্রুপের গুলিতে ১জন নিহতসহ ২ জন আহত হয়। তাছাড়া ভোট কেন্দ্রের ব্যালট বক্সসহ নির্বাচনের সরঞ্জাম ভাংচুর করা হয়।

এদিকে নিহত হৃদয়ের মা জানায়, আব্দুল আজিজ আমাদের হৃদয়কে গুলি করে মেরে ফেলেছে। আমার বুক খালি করেছে ওই আজিজ। আমি এই হত্যার বিচার চাই।

নিউজটি শেয়ার করুণ