না.গঞ্জে মাদ্রাসাছাত্রীকে মুখ বেধে ধর্ষন, ধর্ষক যুবক গ্রেপ্তার

শেয়ার করুণ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ১১ বছর বসয়ী মাদ্রাসাছাত্রীকে মুখ বেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে মামলা হলে সুজন মিয়া (৩১) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ শনিবার (১৬ মার্চ) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন আড়াইহাজার থানার ওসি আহসান উল্লাহ।

গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর দক্ষিণপাড়া এলাকায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শুক্রবার (১৫ মার্চ) ভুক্তভোগীর বাবা থানায় মামলা করেন। ওই দিন রাতে অভিযুক্ত সুজনকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত সুজন মিয়া (৩১) সোনারগাঁও উপজেলার পেকিরচর গ্রামের আশ্রাফ উদ্দিনের ছেলে। তিনি পেশায় একজন অটোরিকশাচালক। বর্তমানে তিনি আড়াইহাজার উপজেলার লতবদী গ্রামের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী শিশুর পরিবার একই বাড়িতে ভাড়া থাকে। গ্রামের একটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে সে। ঘটনার দিন সন্ধ্যা ৭টার দিকে শিশুটিকে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে সুজন মিয়া তার অটোরিকশায় তোলেন। পরে একটি সেতুর পাশের নিচু জমিতে নিয়ে কাপড় দিয়ে শিশুটির মুখ বেঁধে ধর্ষণ করেন।

এ ঘটনার পর বাসায় ফিরে শিশুটি অঝোরে কাঁদতে থাকে। এরপর মা-বাবার কাছে ঘটনাটি জানায় সে।

এ ব্যাপারে আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান উল্লাহ বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাটি প্রভাবশালী মহলের আপস-মীমাংসা করার কারণে মামলা করতে দেরি হয়। অভিযুক্ত সুজনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুণ