নেদারল্যান্ডসে আবারও পবিত্র কুরআন অবমাননা

শেয়ার করুণ

নেদারল্যান্ডসে আবারও পবিত্র কুরআন অবমানন

নেদারল্যান্ডসে আবারও কোরআন অবমাননার ঘটনা ঘটেছে। দেশেটির ইসলামবিদ্বেষী সংগঠন পেজিদার এক নেতা এ কাণ্ড ঘটিয়েছে।

 

গত শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দেশটির হেগে অবস্থিত তুরস্কের দূতাবাসের সামনে কোরআন ছিঁড়ে ফেলেন তিনি।

তুরস্কের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি জানিয়েছে, এদুইন ভেগেনসভালদ জার্মানভিত্তিক ইসলামবিদ্বেষী সংগঠন পেজিদার নেদারল্যান্ডস শাখার নেতা। ভেগেনসভালদ তুরস্কের দূতাবাসসহ পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া ও ডেনমার্কের দূতাবাসের সামনে একাধিকবার কোরআন ছিঁড়ে ফেলে। এ সময় সে ইসলাম ও মুসলমানদের কেন্দ্র করে বিভিন্ন অপমানসূচক মন্তব্য করেন।

তবে তুরস্কের দূতাবাসের সামনে ‍তিনি শুধু কোরআন ছিঁড়েই ক্ষান্ত হননি। কোরআন ছেড়ার পর এর পাতা পা দিয়ে মাড়ান তিনি।

সম্প্রতি উত্তর ইউরোপের দেশগুলোতে ইসলামবিদ্বেষী ব্যক্তিত্ব ও গোষ্ঠীগুলো বারবার কোরআন পোড়ানো এবং মুসলিমদের পবিত্র গ্রন্থকে অপমান করার প্রচেষ্টা চালিয়েছে। এসব ঘটনা মুসলিম দেশগুলোর পাশাপাশি সারা বিশ্বেই ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে।

এর আগে ইউরোপেরই অপর দুই দেশে সুইডেন ও ডেনমার্কে একাধিকবার কোরআন অবমাননার ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে দেশ দুটির সম্পর্কের অবনতিও ঘটে। পরে ডেনমার্ক কোরআনসহ অন্যান্য পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ পোড়ানো বন্ধ করতে আইনি উপায় খোঁজা শুরু করে।

 

নিউজটি শেয়ার করুণ