ফতুল্লায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে বিপুল অস্ত্রসহ ডাকাত দল আটক

শেয়ার করুণ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আন্তঃ জেলা ডাকাত দলের সর্দারসহ কুখ্যাত ০৫ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন।

আজ শুক্রবার (৮ মার্চ) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান র‍্যাব ১১ এর এএসপি সনদ বড়ুয়া। এসময় ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপরাধে ব্যবহৃত হাশুয়া, রামদা সহ বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র জব্দ করা হয়।

গত ৭ মার্চ ফতুল্লা থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ফতুল্লায় দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আন্তঃ জেলা ডাকাত দলের সর্দারসহ কুখ্যাত ০৫ ডাকাতকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে এবং ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপরাধে ব্যবহৃত হাশুয়া, রামদা সহ বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র জব্দ করতে সক্ষম হয় র‍্যাব।

প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, আসামিরা সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য এবং তাদের সর্দার আবুল হোসেন ওরফে আবুল (৪০)। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় বসতবাড়ি, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান, মহাসড়কে চলাচলরত পণ্যবাহী ও যাত্রীবাহী যানবাহনে চুরি, ডাকাতি, দস্যুতা, ছিনতাই করে আসছিল। তারা ডাকাতির উদ্দেশ্যে ঘটনাস্থলে অবস্থান করছিল।

উদ্ধারকৃত দেশীয় অস্ত্র সমূহ আসামিরা তাদের সন্ত্রাসী কার্যক্রমে ব্যবহার করতো বলে তারা জানায়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- শরিয়তপুরের গোসাইরহাটের যুশুরা বাজারের সামসুল হকের ছেলে আবুল হোসেন আবুল (৪০), পটুয়াখালীর সেয়াঘাঠি এলাকার কালাম হাওলাদারের ছেলে জাকির হোসেন (২৮), ঢাকার নবাবগঞ্জের আব্দুর রব শেখের ছেলে মিজানুর রহমান (২৬), শরিয়তপুরের গোসাইরহাটের নাগের পাড়ার মৃত জামাল ব্যাপারীর ছেলে মোঃ নাইম ব্যাপারী (২১) ও পটুয়াখালীর বাউফলের মৃত মোজাম্মেল হোসেন মুন্সীর ছেলে কাউছার (২২)।

আসামিদের ফতুল্লা থানার হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুণ