ফতুল্লা যুবলীগ নেতা সোহেলের স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

শেয়ার করুণ

ফতুল্লায় যুবলীগ নেতার স্ত্রী আয়েশা আক্তার মিতু (২৬) নামের এক তরুণীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ সোমবার (২৯ জানুয়ারী) ফতুল্লার পুলিশ লাইন আফাজ নগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত তরুণী শরিয়তপুর জেলার নড়িয়া থানার মূলফুতগঞ্জের ইটালী প্রবাসী হান্নান মিয়ার মেয়ে ও বিসিক শাসনগাঁও এলাকার যুবলীগ নেতা সোহেলের স্ত্রী। নিহত আয়েশা ইটালী প্রবাসী এবং সোহেল মাতবের স্ত্রী।

জানা যায়, তিন বছর পূর্বে সে ইটালী থেকে বাংলাদেশে আসে। তার বাবাও ইটালীতে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে। নিহত তরুনীর বর্তমান স্বামী বিসিকের স্থানীয় যুবলীগ নেতা সোহেল মাতবর। এর আগে নিহত আয়েশা বনিবনা না হওয়ায় প্রথম স্বামীকে ডিভোর্স দিয়ে চার মাস পূর্বে সে সোহেলকে পারিবারিক সম্মতিক্রমে বিয়ে করে। নিহতের আগের সংসারে একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। সোমবার সকালে নিহত তরুণী বিসিকস্থ স্বামীর বাড়ী থেকে মায়ের বাড়ী আফাজ নগরে আসে। পারিবারিক বিভিন্ন বিষয়াদী নিয়ে নিহতের সাথে তার পরিবারের সদস্যদের সাথে মনমালিন্য এবং কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে নিহত তরুণী তার মায়ের ঘরে প্রবেশ করে দরজা লাগিয়ে দেয়। নিহতের মা সহ ভাইয়েরা ডাকাডাকি করে কোন সারশব্দ না পেয়ে ঘরের দরজা ভেঙ্গে দেখতে পায় সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচানো নিহতের ঝুলন্ত দেহ। পরিবারের সদস্যরা তাকে দ্রুত খানপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষনা করে।

এ বিষয়ে ফতুল্লা থানার ইন্সপেক্টর (অফিসার ইনচার্জ) নুরে আযম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছি। লাশ ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টরিয়া) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছি এটি আত্মহত্যা। এ বিষয়ে ফতুল্লা থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা প্রক্রিয়াধীন।

নিউজটি শেয়ার করুণ